কোম্পানীগঞ্জে কসাই কাঞ্চনের বাড়ি থেকে অস্ত্র, গুলি উদ্ধার

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সম্প্রতিক সহিংসতাসহ বিভিন্ন মামলার আসামী মাইন উদ্দিন কাঞ্চন (৪৬) ওরপে কসাই কাঞ্চনের বাড়ি থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছ পুলিশ। তবে; তাকে আটক করা যায়নি। মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার চরকাঁকড়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের তার বাড়ি থেকে অস্ত্রগুলো উদ্ধার করা হয়।

এদিকে আওয়ামী লীগ রাজনীতির সাথে জড়িত কসাই কাঞ্চনের বাড়ি থেকে অস্ত্র উদ্ধারের পর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র মীর্জা কাদেরের সাথে তার ছবি ছড়িয়ে পড়ে অনলাইনে। প্রকাশিত সংবাদের সাথে সেই ছবি ব্যবহৃত হতে দেখা যায়।

এ প্রসঙ্গে- কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কসাই কাঞ্চনের বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে তার শোবার ঘরে খাটের নিচ থেকে বাজারের ব্যাগে থাকা একটি পাইপগান ও দুই রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ডাকাতিসহ বিভিন্ন ঘটনায় ৮-৯টি ও সম্পতি চাপরাশিরহাট এবং বসুরহাটে সংঘর্ষের ঘটনায় বিষ্ফোরক আইনে আরও ২-৩টি মামলা রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

প্রসঙ্গত: গত ১৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিকেলে কোম্পানীগঞ্জের চাপরাশিরহাট পূর্ব বাজারে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও কোম্পানীগঞ্জের সাবেক উপজেলার চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের মধ্যে গোলাগুলি। পরে এই দু’পক্ষ গত ৯মার্চ মঙ্গলবার বিকেলে থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বসুরহাট বাজারে গোলাগুলিতে লিপ্ত হয়। এ দু’টি গোলাগুলির ঘটনায় প্রচুর পরিমাণে অস্ত্রের ব্যবহারের ঘটনা ঘটে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছিলেন সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির ও সিএনজি চালক আলা উদ্দিন। গুলিবিদ্ধ হয়েছেন আরও অন্তত ২০জন। পরবর্তীতে সন্ত্রাসীদের ব্যবহৃত এসব আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারে অভিযানে নামলেও ৭টি ককটেল ও ২৬টি লাঠি ছাড়া বড় ধরেন কোন সফলতা পায়নি পুলিশ। এতে জনমনে চরম আতংক বিরাজ করছে। 

মন্তব্য লিখুন :


আরও পড়ুন