সোনাইমুড়ীতে ফ্রি চক্ষু ছানি অপারেশন ও মেডিকেল ক্যাম্প

সহস্রাধিক রোগীর বিনামূল্যে চিকিৎসা প্রদান

বিজয়ের মাস উপলক্ষে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে বিনামূল্যে লেন্সসহ ৬০ জন রোগীর চক্ষু ছানি অপারেশন ও মেডিকেল ক্যাম্পে সহস্রাধিক অসহায় ও দুস্থ  রোগীর বিনামূল্যে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। সোনাইমুড়ী অন্ধ্য কল্যান সমিতি আই হসপিটাল কার্যালয়ে ও ডা: শামীমাা নাছরিন ফাউন্ডেশনের সৌজন্য শুক্রবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত পর্যন্ত এ ফ্রি চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম চলে। 

এ চিকিৎসা ক্যাম্পে  ঢাকা ও চ্রটগ্রাম থেকে বিশেষঞ্জ প্রায় শতাধিক চিকিসৎসকগন চক্ষু, মেডিসিন, শিশু, ইউরোলজি. সার্জারি, অর্থপেডিকস, গাইনী, চর্ম, মনোরোগ, হৃদরোগসহ ১০ বিভাগে  রোগীদের  বিানমুল্যে ব্যবস্থা পত্র  ও ঔষধ প্রদান করেন। 

 এ সময় সোনাইমুড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার টিনা পাল, অন্ধ কল্যাণ সমিতি আই হসপিটালের  পরিচালক  ও কনসালটেন্ট এম এ এইচ শরীফ, সোনাইমুড়ী অন্ধ কল্যান সমিতির সহভাপতি  মমিনুল ইসলাম বাকের, অন্ধ্যা কল্যান সমিতি  প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ারুল হক কামাল, মুক্তিযোদ্ধা ইউনুছ মাষ্টার, জহিরুল ইসলাম কাউন্সিলর,  নোয়াখালী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ কাজী রফিক উল্যা, ভিপি নুরুল হক সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও  সমিতির বিভিন্ন স্তুরের সদস্য  উপস্থিত ছিলেন।

হসপাতালের পরিচালক কনসালটেন্ট ডাঃ এম এ এইচ শরীফ জানান, সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ফ্রি‘তে চিকিৎসা সেবার কথা থাকলেও এলাকার দুর দুরান্ত থেকে বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে শত শত নারী পুরুষ শিশুসহ বিভিন্ন বয়সী রোগী আসার কারণে রাত আট টা পর্যন্ত চিকিৎসা দেয়া হয় । এতে প্রায় ৬০ জন রোগীর চোখে ফ্রি লেন্সসহকারে ছানি অপারেশন করা হয় এবং এক হাজার রোগীকে বিনামুল্যে ফ্রি স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করেন দেশের খ্যাতনামা চিকিৎসকগন। 

সোনাইমুড়ী অন্ধ কল্যাণ সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া জানান, ১৯৭৮ সালে সোনাইমুড়ী অন্ধ কল্যাণ সমিমি প্রতিষ্ঠিত হয়। দেখতে সে সমিতির বয়স ৪২ বছরে। ইতমধ্যে এ সমিতির সঞ্চিত ও  সরকারের দেয়া প্রায় ১৬ কোটি টাকা ব্যয়ে নোয়াখালী-ফেনী ও লক্ষীপুর জেলায় একমাত্র প্রাইভেট পাটর্নারশীপে সোনাইমুড়ী অন্ধ কল্যাণ সমিতির আই হসপিটাল তৈরি করা হয়। এখানে স্বল্পমুল্যে আধুণিক সকাল প্রকার সুযোগ সুবিধা দিয়ে চোখের যাবতীয় চিকিঃসা প্রদান করে আসছে। একিদকে বিজয়ের মাস অপরদিকে অন্ধ কল্যাণ সমিতির গৌরবের ৪২ বছর উপলক্ষে ডাঃ শামীমা নাসরিন ফাউনেন্ডশনের উদ্যোগে  এ আয়োজন করা হয়েছে। এ ক্যাম্পে চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ সিএমসির ৭২-৭৩ ব্যাচের বিশেষজ্ঞ প্রফেসর চিকিসকগন সম্পূর্ন বিনামুল্যে চিকিৎসা প্রদান করেন। 

তিনি আরো জানান,  সমাজের বিত্তশালীদেও কাছ থেকে এ ধরনের সার্বিক সহযোগিতা পেলে ভবিষ্যতেও এ ধরনের ফ্রি সেবা কার্যক্রম চালানা সম্ভব হবে।


মন্তব্য লিখুন :