চৌমুহনীতে করোনায় আক্রান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যু

নোয়াখালীর চৌমুহনী পৌরসভায় করোনায় সংক্রমিত ৭৪ বছর বয়সের এক ব্যাক্তির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। সনাক্ত হওয়ার পর তিনি বাড়িতে হোম আইসোলেশনে ছিলেন। মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তাঁর বাড়ি চৌমুহনী পৌরসভার পশ্চিম গণিপুর গ্রামে।

বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসীম কুমার দাস বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, করোনা উপসর্গ থাকায় পশ্চিম গণিপুরের এ বাসিন্দা ও তার কলেজ পড়–য়া ছেলে পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়েছিলেন। গত ২১ মে বৃহস্পতিবার তাদের দুই জনের করোনা পজিটিভ আসে। পরবর্তীতে তাদের দুইজনকে নিজ বাড়ীতে হোম আইসোলেশনে রাখা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে ওই ব্যক্তি মারা যান। সকল ধরনের নিয়ম মেনে স্থানীয় একটি সেচ্ছাসেবী সংগঠন তার দাফনের দায়িত্ব নিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, আজ উপজেলায় নতুন করে আরও ৪৫জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তার মধ্যে বেশির ভাগই চৌমুহনী পৌরসভার বাসিন্দা।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জেলায় মোট আক্রান্ত ৪১৪জন। বেগমগঞ্জে ২২৪, কবিরহাটে ৫৪, সদরে ৫২, চাটখিলে ৩০, সোনাইমুড়ীতে ১৮, সুবর্ণচরে ১২, সেনবাগে ১১, কোম্পানীগঞ্জে ৭ ও হাতিয়ায় ৬জন রোগী রয়েছে। যাদের মধ্যে মারা গেছেন সোনাইমুড়ীতে মোরশেদ আলম (৪৫) নামে এক ইতালি প্রবাসী, সেনবাগে এক রাজমেস্ত্রী মো. আক্কাস (৪৮), বেগমগঞ্জে তারেক হোসেন (৩০) ও আমিনুল ইসলাম মিন্টু (৪৭) নামের দুই ব্যবসায়ী, সোনাইমুড়ীতে ফখরুল ইসলাম বাচ্চু (৫৯) নামের এক কৃষক, বেগমগঞ্জের কুতুবপুরে শহিদুর রহমান (৬৬), চৌমুহনী পৌরসভা করিমপুরের বেলাল উদ্দিন (৫৭) এবং চৌমুহনী পৌরসভার পশ্চিম গণিপুর হাজী আবুল খায়ের পাটোয়ারী (৭৪)। সুস্থ হয়েছেন ২৯জন।


মন্তব্য লিখুন :