সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যা : গ্রেপ্তারকৃত যুবলীগ কর্মী বেলাল তিন দিনের রিমান্ডে

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষ ও পুলিশের মধ্যে ত্রিমুখী সংঘর্ষ ও গোলাগুলিতে নিহত সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত আসামী যুবলীগ কর্মী বেলাল প্রকশা পাঙ্খা বেলালের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

সোমবার দুপুরে জেলা চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক এসএম মোসলেহ উদ্দিন মিজান এ আদেশ প্রদান করেন। আসামী বেলাল কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মো ইব্রাহিমের ছেলে। 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও নোয়াখালী পিবিআই পরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, রোববার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট বাজার থেকে বেলালকে গ্রেপ্তার করা হয়। সোমবার সকালে ৫দিনের রিমান্ডের আবেদন করে বেলালকে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে আদালত শুনানী শেষে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। পিবিআই কার্যালয়ে নিয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। 

প্রসঙ্গত, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার কোম্পানীগঞ্জের চাপরাশিরহাট পূর্ব বাজারে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর ছোট ভাই বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশও বেশ কয়েক রাউন্ড টিয়ারসেল ও শর্টগানের গুলি ছুঁড়ে। ঘটনার ছবি ও ভিডিও ধারণ করতে গিয়ে ত্রিমুখী সংঘর্ষের মুখে পড়ে গুলিবিদ্ধ হন সাংবাদিক মুজাক্কির’সহ ৭-৮জন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২০ ফেব্রুয়ারি শনিবার রাত ১০টা ৪৫মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান মুজাক্কির। 

এ ঘটনায় গত ২৩ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার সকালে মুজাক্কিরের বাবা নোয়াব আলী মাস্টার বাদী হয়ে অজ্ঞাত একাধিক ব্যক্তিকে আসামী করে কোম্পানীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওইদিন রাতে মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য পিবিআইতে হস্তান্তর করা হয়।


মন্তব্য লিখুন :