লক্ষ্মীপুরে সাংবাদিক পরিচয়ে প্রতারণাকালে আটক তিন

লক্ষ্মীপুরে সাংবাদিক পরিচয়ে প্রতারণার দায়ে তিন জনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ লক্ষ্মীপুর পৌর শহর থেকে কামরুল (৫৩),তারেক উদ্দিন জাবেদ (৩৮) ও সোহেল (৩০) তিন জনকে আটক করে। 

পুলিশ জানায়, দীর্ঘদিন ধরে লক্ষ্মীপুর জেলায় বিভিন্ন উপজেলায় বিভিন্ন সেক্টর থেকে চাঁদাবাজি শুরু করে তারা। এ নিয়ে স্থানীয় লোকজনসহ সরকারি অফিস কয়েকজন কর্মকর্তা তাদের কর্মকান্ডে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তবে তিনজনকে আটকের পর সন্তোষ ও স্বস্তির কথা জানিয়েছেন অনেকে।  

স্থানীয়দের অভিযোগ, সাম্প্রতিক সময়ে তারা সাংবাদিক পরিচয়ে সংঘবদ্ধ হয়ে কয়েকজন সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীদের হয়রানি করে আসছে। এছাড়া তারা নানা রকম কথা তুলে ভয়ভীতি দেখিয়ে তারা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বাসাবাড়ি, কারখানা থেকে নিয়মিত চাঁদাবাজি করে আসছে। এতোদিন তাদের এসব হয়রানির ভয়ে কেউ মুখ খুলেও ক্ষতিগ্রস্থ কয়েকজন নারী ও পুরুষ লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি/সাধারণ সম্পাদকসহ নিকটস্থ থানায়। এর পুলিশ তদন্ত করে তাদের প্রতারনার সুনিদিষ্ট প্রমান পেয়ে শনিবার রাতে তাদের আটক করেন। 

এ বিষয়ে লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হোসাইন আহম্মদ হেলাল জানান, লক্ষ্মীপুরে সাংবাদিক পরিচয়ে প্রতারণার দায়ে পুলিশের নিকট আটককৃত তিন জনসহ আরো কয়েকজনের নামে আসে।তাদের শুধরাতে তাদেরকে হুসিয়ারিসহ সিনিয়র সাংবাদিকদের সাথে বৈঠক হয়। বৈঠক হয় স্থানীয় প্রশানের সাথেও। প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে প্রতারনা ও চাঁদাবাজদের সত্যাতা পায় এর পর তাদেরকে আটক করেন। এর পর তাদের প্রতারণার শিকার ব্যক্তিরা থানায় আলাদা আলাদা ভাবে থানায় মামলা করেন। 

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়া জানান, সাধারণ মানুষের সাথে সালিশী বৈঠক ও সাধারন মানুষের সাথে প্রতারণার দায়ে তিন জনকে আটক করে পুলিশ। আটকৃতরা সাংবাদিক পরিচয় দিলেও তাদের বিরুদ্ধে রয়েছে সাধারণ মানুসের একাধিক অভিযোগসহ সরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের নানা প্রকার হয়নির অভিযোগ। আটককৃত তিন জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ তাদের জেলা হাজতে প্রেরন করেছে। 


মন্তব্য লিখুন :