রায়পুরে নির্মাণ শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে নজির আহাম্মেদ (৫৫) নামের এক নির্মাণ শ্রমিককে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তিন জনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা হয়েছে। শনিবার দুপুরে (২৫ এপ্রিল) উপজেলার চরমোহনা ইউপির চরমোহরা গ্রামের আব্দুল হামিদ মালের বাড়ীতে  এ ঘটনা ঘটে।  

রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তঅ (ওসি) তোতা মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, জমি নিয়ে বিরোধের জেরে নজির আহাম্মদকে হত্যার ঘটনায় ৩ জনকে  আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গ্রেফতারের। রোববার রাতে নিহতের ছেলে তারেক বাদী রায়পুর থানায় এ মামলা করেন। মামলায় একই এলাকার প্রতিপক্ষ হারুন মাল, তার ছোট ভাই লিটন মাল ও ছেলে শান্ত মালকে হত্যা মামলায় আসামী করা হয়। ওইদিনই পুলিশ লাশ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। ময়না তদন্ত শেষে মরদেহ নিহতের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

নিহতের স্বজন ও মামলার এজাহার ও পুলিশ সুত্রে জানাযায়, দীর্ঘদিন ধরে দেড় শতাংশ জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো একই এলাকার চরমোহরা গ্রামের নজির আহাম্মদ মালের পরিবারের সাথে একই এলাকারহারুন মালের পরিবারের মধ্যে। এদিকে এসব ঘটনা নিয়ে শুক্রবার তারাবির নামাজের ওই জমি নিয়ে দুই পক্ষের কথা কাটাকাটি হয়। শনিবার দুপুরে  ওই জমিতে নজির আহাম্মদের পরিবার সীমানা নির্ধারন করতে গেলে গালমন্দ করে হারুনের পরিবার। এসময় দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও এক পর্যায়ে হারুনের ছেলে শান্ত নজির আহাম্মদের ছেলে তারেককে মারধর করে। এসময় নজির আহাম্মদ বাধা দিতে গেলে হারুন, লিটন ও শান্ত পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পালিয়ে যায়। পুলিশ সংবাদ পেয়ে নিহত নজিরের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠায় । 

মন্তব্য লিখুন :