গান্ধী আশ্রমে র্ঝণা ধারার চৌধুরীর স্মরণ সভা

নিজ কর্মক্ষেত্র জয়াগের গান্ধী আশ্রম ট্রাস্ট প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়েছে পদ্মশ্রী, একুশে পদকসহ অসংখ্য পদকপ্রাপ্ত সমাজকর্মী সদ্য প্রয়াত ঝর্ণা ধারা চৌধুরীর স্মরণ সভা। শুক্রবার অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। সভায় স্থানীয় সাংসদ, ভারতীয় হাইকমিশনারসহ দেশবরেণ্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী- মহাত্ম  গান্ধীর শান্তি, সম্প্রীতি ও অহিংসার চেতনা আমাদেরকে সবসময় ধারন করতে হবে। সমাজে নানা অবক্ষয় রোধে এ চেতনার বিকল্প কোনো কিছু নেই। গান্ধী আশ্রমকে আন্তর্জাতিক মানের করা হলে এ শুভ কাজে সরকার পাশে থাকবে। 

স্মরণ সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন গান্ধী আশ্রম বোর্ড অব ট্রাস্টির  সুযোগ্য চেয়ারম্যান  ও দৈনিক জনকেেণ্ঠর নির্বাহী সম্পাদক  স্বদেশ রায়।


ভারতীয় হাই কমিশনার রীভা গাঙ্গুলী শ্রী ঝর্ণা ধারা চৌধুরীর বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের স্মৃতি চারন করে বলেন, আমার অথবা কারো পক্ষে ঝর্ণা দি‘র অবদান হিসেব করা সম্ভব নয় বিশেষত আজকের এ স্বার্থপর বিশ্বে ঝর্ণা দি‘র জীবন ছিলো অন্যের জন্য নিবেদিত। শৈশবে দেখা সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার স্মৃতি উনাকে মহাতœা গান্ধীর আদর্শের পথে কাজ করতে অনুপ্রাণিত করে।  সে থেকে ঝর্ণা দি বিশ্বের কল্যাণে তার জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। আমরা শান্তি সামাজিক  ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এবং ভারত ও বাংলাদেশের বন্ধুত্বের প্রতি ঝর্ণা দি‘র অবদান স্মরণ করি। এসময় তিনি ভারতের পররাস্ট্র মন্ত্রী ডক্টর এস জয়শঙ্করের একটি শোক বার্তা পাঠ করেন ।


স্মরণ সভায় স্মরণ সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন গান্ধী আশ্রম বোর্ড অব ট্রাস্টির  সুযোগ্য চেয়ারম্যান  ও দৈনিক জনকেেণ্ঠর নির্বাহী সম্পাদক  স্বদেশ রায়।  এ সময় উপস্থিত অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন নোয়াখালী-১ আসনের  স্থাণীয় সংসদ সদস এইচ এম ইব্রাহিম, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড.  মুনতাসির মামুন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য্য অধ্যাপক কামরুল হাসান,  বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সাধারন সম্পাদক ড.জামাল উদ্দিন আহম্মেদ এফসি এ, সমাজতাত্বিক গবেষক ড. সাখাওয়াত আলী, চটগ্রামস্থ ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার শ্রী অনিন্দ ব্যানার্জী,  নোয়াখালী জেলা প্রশাসক তন্ময় দাস, পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন প্রমুখ।
এর আগে অতিথিবৃন্দ শ্রীমতি ঝর্ণা ধারা চৌধুরীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তাঁর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করেন।


প্রসঙ্গত ঃ গত  ২৭ জুন ঢাকার একটি বেরসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শ্রীমতি ঝর্ণা ধারা চৌধুরী শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।


মন্তব্য লিখুন :