জন্মস্থান ছয়ানিতে সংবর্ধিত যুব টাইগার ইমন

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে  স্নায়ুক্ষয়ী ফাইনালে চারবারের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়া বাংলাদেশ দলের ওপেনার যুব টাইগার পারভেজ হোসেন ইমন সংবর্ধিত হয়েছেন পিতৃভূমিতে।  রোববার নিজ জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে লায়ন ইসমাইল ফিরোজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। 

বিকাল সাড়ে তিনটায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমন। স্থানীয় যুবকদের মোটর শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে ইমন সংবর্ধনা স্থানে আসেন। এ সময় উৎসুক লোকজনকে তিনি হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানান। বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গও এ সময় তাকে ফুলেল শুভেচ্ছায় ভরিয়ে দেন। নানা স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে সংবর্ধনা স্থল। 

পরে বিকাল প্রায় ৪টার দিকে সংবর্ধনা মঞ্চে তাকে ফুল ও ক্রেস্ট দিয়ে সংবর্ধনা জানানো হয়। এ সময় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন, ইসমাইল ফিরোজ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইসমাইল হোসেন। বক্তব্য রাখেন- ছয়ানি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন জসিম, বিকেএসপির কোচ ইরফানুর জামান সোহাগ, সংবর্ধিত ইমনের বড় ভাই ফয়সল হোসেনসহ অনেকে। 

এ সময় আয়োজকরা বক্তব্যে জানান, নিজ এলাকায় ইমনকে সংবর্ধিত করার উদ্দেশ্য ভবিষ্যতে তাকে দেখে এলাকার যুব সমাজ অনুপ্রাণিত হবে। তারা প্রত্যাশা করেন, ইমনকে দেখে এখান থেকে উঠে আসবে অনেক ইমন। 

আর সংবর্ধিত খেলোয়ার পারভেজ হোসেন ইমন তাঁর অনুভুতি প্রকাশ করতে গিয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে জাগো নিউজ  জানান, নিজ জন্মস্থানের মানুষ যে রকম সংবর্ধনা দিবে সে ভাবতেও পারে নাই। সবার কাছে কৃতজ্ঞ। সে সময় তার ভবিষ্যত পরিকল্পনা নিয়ে আরো জানান,  নিজের পারফর্মেন্স ধরে রেখে  জাতীয় দলের হয়ে খেলার তার ইচ্ছা আছে। তবে সামনের পথ আরো কঠিন তবে আস্তে আস্তে সব বাধা বিপত্তি অতিক্রম করবে। 

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ইমনের সাথে তার বাবা  ও ভাই এসেছে। তারাও উচ্ছ্বসিত ও আনন্দিত। 


পারভেজ হোসেন ইমন ছয়ানী ইউনিয়নের ছোট শীব নারায়ণপুর গ্রামের আলী সওদাগর বাড়ির মো. সিরাজ বাবুল ও কুসুম আক্তার দম্পতির ছেলে। তিন ভাই-বোনের মধ্যে ইমন কনিষ্ট।


স্থানীয় এলাকাবাসীর প্রত্যাশা ইমন শুধু বেগমগঞ্জের ছয়ানী গ্রাম নয় গোটা বাংলাদেশও বিশ্বকে জয় করেছেন। সে যেনো ভবিষ্যতে নিজ এলাকার ক্রিকেট খেলোয়াড়দেরও প্রশিক্ষন দিয়ে তার পথে নিয়ে যেতে পারে দেশ ও দশের মুখ আলোকিত করতে পারে  । 

মন্তব্য লিখুন :