নোয়াখালীর সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিদের সংবাদ সম্মেলন

অধ্যাপক মো. হাসেমের চিকিৎসার দায়িত্ব সরকারকে নেয়ার আহবান

নোয়াখালীর আঞ্চলিক গানের বিশিষ্ট গীতিকার, সুরকার ও শিল্পী অধ্যাপক মো. হাসেমের চিকিৎসায় সরকারি সহায়তা চেয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, নোয়াখালী। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সহিদ উদ্দিন এস্কান্দার কচি মিলনায়তনে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। 

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট নোয়াখালীর সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমদাদ হোসেন কৈশোর লিখিত বক্তব্যে বলেন, অধ্যাপক মো. হাসেমের ব্রেইন স্ট্রোক করেছে এবং তার ফুসফুসে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তিনি সংকটাপন্ন অবস্থায় বর্তমানে আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রফেসর ডা. রশিদুল হাসানের তত্বাবধানে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন। প্রতিদিন তার চিকিৎসায় ৫০ হাজার টাকা খরচ হচ্ছে। যা পরিবারের পক্ষে মেটানো সম্ভব হচ্ছে না। তাই জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন শিল্পী সংস্কৃতিবান্ধব সরকারের কাছে আকুল আবেদন জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী অধ্যাপক মো. হাশেমের সুচিকিৎসার দায়িত্ব গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার যেন বহন করেন। 

তিনি আরও বলেন, অধ্যাপক মো. হাসেম একাধারে নোয়াখালীর আঞ্চলিক গানের গীতিকার, সুরকার, শিল্পী ও গবেষক, তিনি সংগীত মহাবিদ্যালয়ের লোকসংগীতের শিক্ষক ছিলেন। এরপর তিনি শিক্ষকতা পেশায় নিযুক্ত হয়ে নোয়াখালী সরকারি কলেজ, লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ, কবিরহাট সরকারি কলেজসহ বিভিন্ন কলেজে বাংলা বিভাগে অধ্যাপনা করেন। অধ্যাপক হাসেম নোয়াখালীর নিজস্ব সংস্কৃতি, লোকজ বিভিন্ন আচার, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে অজ¯্র গান রচনা করেছেন।  

সাংবাদিক সম্মেলনে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট নোয়াখালীর সভাপতি বিমলেন্দু মজুমদার, রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী অধ্যাপক রমানাথ সেন, কবি প্রত্যয় জসীম, কবি জামাল হোসেন বিষাদ, কবি ও শিক্ষক ম. পানাউল্যাহ, শিল্পী অধ্যাপক মো. হাসেমের বড় মেয়ে শাহনাজ হাসেম কাজলসহ জেলার সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

মন্তব্য লিখুন :