লক্ষ্মীপুরে নতুন করে ১৭ জন করোনা রোগী সনাক্ত

লক্ষ্মীপুর জেলায় নতুন করে ১৭টি করোনা পজিটিভ রোগী সনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে রামগঞ্জে ১৩টি, কমলনগরে ৩টি এবং সদরে ১টি। এনিয়ে লক্ষ্মীপুর  জেলায় এ পর্যন্ত সনাক্তের সংখ্যা ১৯ জন। তবে এর আগে সর্ব প্রথম  ঢাকা থেকে আসা গার্মেন্ট শ্রমিক প্রথমবারের মতো লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে করোনা রোগী সনাক্ত হয়। এর পর দ্বিতীয় করোনা রোগী সনাক্ত হয় নারায়নগঞ্জে তাবলিগ জামায়াতে রামগতিতে আসা ৫৫ বছরের বৃদ্ধে। এর পর পর্যায় ক্রমে আক্রাদের আত্মীয়-স্বজন থেকে ছড়িয়ে পড়ে। 

জেলা সিভিল সার্জন ডা: আব্দুল গফফর জানান, আক্রাদের আত্মীয়-স্বজন থেকে করোনা সনাক্তের সংখ্যা বাড়ছে। এর আগে যে রামগঞ্জে আক্তান্ত হয়েছিল তাদের আত্তীয় স্বজনদের নমুনা সংগ্রহ করে চট্রগ্রামের বিআইটিআইডিতে পাঠানো হয়। ফলাফলে রামগঞ্জে ১৩ জনের পজেটিভ আসে। এছাড়া কমলনগর হাজিরহাট বাজার এলাকায় ৫৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তির জ্বর-সর্দিতে ভুলছিলেন। আরেকজন ওই এলাকার ১১ বছর বয়সী শিশু ও ২৭ বছর বয়সী এক নারী রয়েছে। এছাড়া জ্বর-সর্দিতে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলায় এক জন করোনা পজিটিভ রোগী সনাক্ত হয়। 

তিনি আরো জানান,আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য ঢাকার কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে। পাশাপাশি তাদের সংম্পর্শে আসা ব্যাক্তিদেও নতুন নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। তাছাড়া আজ শুক্রবার ৫ম দিনের মত চলছে লক্ষ্মীপুর জেলাই লকডাউন চলছে ।

জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল জানান, করোনার বিস্তার রোধে  ৫ম দিনের মত চলছে লক্ষ্মীপুর জেলাই লকডাউন জেলায় এ সিদ্ধান্ত বলবৎ আছে। তিনি আরো আরো জানান, লকডাউনের সময় জেলায় জনসমাগম ও যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। একইসঙ্গে জেলার বাইর থেকে মানুষ বা যানবাহন প্রবেশ করতে কিংবা বের হতে পারবে না। তবে জরুরি সেবা (চিকিৎসা, ওষুধ, কৃষি পণ্য,খাদ্য সামগ্রী ও গণমাধ্যমের যানবাহন) এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে। কেউ নির্দেশনা অমান্য করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন :