বেগমগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানরা নিরাপত্তাহীনতায় !

চেয়ারম্যানদের ওপর  একের পর হামলা, ন্যায় বিচার না পাওয়া ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে অপ্রচারের কারণে চরম নিরাপত্তাহীনতা ভুগছেন নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের ইউপি চেয়ারম্যানরা। সোমবার দুপুরে উপজেলা পরিষদের ইউপি চেয়ারম্যান সমিতি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন করে এমন অভিযোগ করেছেন ক্ষতিগ্রস্থ চেয়ারম্যানরা। 

সংবাদ সম্মেললে লিখিত বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি ও আমানউল্যাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান মাহমুদ জানান, করোনার দূর্যোগ মূহুর্তে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে যখন চেয়ারম্যানরা জনগনের জন্য নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন । বাড়ী বাড়ি গিয়ে অসহায় দরিদ্র মানুষের হাতে হাতে খাবার সামগ্রী পৌছে দিচ্ছেন। ঠিক সে মুহুর্তে  একটি কুচক্রি মহল মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ও ফেসবুকে চেয়ারম্যানদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে  এবং  প্রশাসনও তাদেরকে ডেকে নিয়ে হেয় করছেন। এছাড়া একের পর বিভিন্ন ইউনিয়নের শসস্ত্র সন্ত্রাসীদল অন্তত পাঁচটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে হত্যার উদ্দেশ্যে নৃশংষভাবে হামলা কছেনে। থানায় অভিযোগ দেয়ার পরও ন্যায় বিচারের চেয়ে উল্টো এখন নিজের পরিবারের সদস্যদের নিয়েও চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। একদিকে নিরপাত্তাহীনতা অপরদিকে ইউনিয়নের জনগনের কাছে তাদের সম্মানহানী হচ্ছে। 

বিষয়টি কঠোর ভাবে দেখার জন্য তারা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এমন অবস্থা চলতে থাকলে তারা নিজেদেও জীবনের নিরাপত্তার স্বার্থেআগামীতে সরকারি বরাদ্দকৃত ত্রান সামগ্রী বিলি করা থেকে বিরত থাকবেন বলেও জানান। 

উপস্থিত চেয়ারম্যানদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,  শরীফপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান  আমিনুর রসুল মিন্টু, রসুলপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন সেলিম, গোপালপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কামরুল হুদা মিন্টু, কুতুবপুর ইউনিয়নের চেয়ানম্যান জাহাঙ্গীর হোসেন হিরন,জিরতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যার রফিকুল ইসলাম মিলনসহ উপজেলার ১৬ টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।

মন্তব্য লিখুন :