হাতিয়া চেয়ারম্যান ঘাটে আগুনে তিনজনের মৃত্যু, আহত-৩

নোয়াখালীর হাতিয়া চেয়ারম্যান ঘাটে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে অগ্নিদগ্ধ দুইজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। একজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকায় মৃত্য হয়। এ সময় অগ্নিদগ্ধসহ আরো অন্তত তিনজন আহত হয়েছে। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত আনুমানিক ৯টার দিকে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী পৌর এলাকার গনিপুরের  মহিবুল হাসান নিপু (৪০), হাতিয়ার বয়ারচরের রহমত (২৬) ও একই এলাকার খালেদ (৪৫)। 

প্রত্যক্ষদর্শী ও অল্পের জন্য মৃত্যু থেকে বেঁচে যাওয়া শহিদ জানান, রাতে তিনিসহ মোট পাঁচজন ছিলেন নিপুর তেল দোকানে। দোকানের মালিক নিপুসহ তিনজন পিছনে হিসাব করছিলেন। সামনে ছিল দুইজন। হঠাৎ ৯টার দিকে দোকানের সামনে থেকে বিকট শব্দ করে আগুনের লেলিহান পিছনের দিকে যায়। এ সময় তিনি আগুনসহ লাফ দিয়ে বের হতে সক্ষম হন। অন্যদের অবস্থা তিনি জানেন না। পরে জানতে পারেন দোকানের মালিক নিপু এবং কর্মচারি রহমতের মরদেহ বের করা হয়েছে। এদিকে আশংকাজনক অবস্থায় রাতে খালেদ নামে একজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলে নিলে মঙ্গলবার  সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার ও মৃত্যু হয়।

চেয়ারম্যান ঘাট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবদুল হালিম জানান, অগ্নিকান্ডে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া আহত হয়েছে অন্তত আরো তিনজন। এর মধ্যে খালেদ নামে একজনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। তার অবস্থা আশংকাজনক। আগুনে অন্তত ২০টি দোকান পুড়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে নিহত নিপুর তেল ও গ্যাস সিলিন্ডারের দোকান থেকেই আগুনের সূত্রপাত। সুবর্ণচর উপজেলা ফায়ার সার্ভিসসহ স্থানীয়দের চেষ্টায় প্রায় দুই ঘন্টা চেষ্টা  চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয় বলে জানা তিনি। তবে এ ঘটনায় আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ এখনও জানা যায়নি। 


মন্তব্য লিখুন :